লেখা ছাড়াও পেন্সিলের যত অজানা ব্যবহার

জানুয়ারি ৮, ২০১৮ ৮:৪৪ পূর্বাহ্ণ

পেন্সিলের সাথে নিশ্চই আর আপনাকে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দিতে হবে না। কারণ আমরা সবাই সেই ছোট বেলা থেকেই পেন্সিলের সাথে পরিচিত। শুধু হাতের লেখা শেখার ছাড়াও ছোট থেকে বড় সবারই নানান রকম কাজে ব্যবহার করেন পেন্সিল। বই পড়তে পড়তে কোথাও দাগ দিয়ে রাখা, ছবি আঁকতে, পরীক্ষার খাতার মার্জিন টানতে কিংবা খসড়া কোনো কিছু লিখে বা এঁকে রাখতে গেলেও দরকার পড়ে পেন্সিলের। কিন্তু এতো পেন্সিলের সাধারণ ব্যবহার। যেটা আমরা সবাই জানি। আপনি কি জানেন, এসব কাজ ছাড়াও পেন্সিল সাহায্য করতে পারে আপনাকে আরো অনেক টুকিটাকি ব্যাপারে? আমাদের দৈনন্দিন জীবনকে সহজ করে দিতে পারে পেন্সিল। আসুন তাহলে আজ আমরা জেনে নেই লেখা ছাড়াও আর কি কি কাজে আমরা পেন্সিল ব্যবহার করতে পারি।

স্টিকারের আঠা: সবচাইতে কাজ দেয় এটা স্টিকারের আঠা ওঠানোর সময়। স্টিকার লাগাবার পর তুলে ফেললে আঠাটা একদম এঁটে থাকে। সেটাকে পেন্সিল ইরেজার দিয়ে ঘষলে খুব সহজেই তুলে ফেলা যায়।

শো-পিস: পেন্সিল আর পেন্সিলের ছেঁচে ফেলা অংশ দিয়ে তৈরি করতে পারেন নানা ধরনের শো-পিস। আপনার বাচ্চাকে দিয়ে কাজটি করান তাহলে ওর ক্রিয়েটিভ ক্ষমতা বাড়বে।

তালা খুলতে: নতুন চাবি নিয়ে সমস্যায় পড়েছেন? ঢুকতেই চায়না ওটা তালার ভেতরে? একটা পেন্সিল নিয়ে চাবির সামনের দিকটা ঘষে নিন। পেন্সিলের গ্রাফাইট সাহায্য করবে চাবিটিকে সহজে তালার ভেতরে প্রেশ করতে।

পোকামাকড় তাড়াতে: পেন্সিলের কেটে ফেলা অংশগুলো সাধারণত আমরা ফেলেই দিই। কিন্তু আপনি কি জানেন যে পেন্সিলের এই ছেটে ফেলা অংশগুলো পোকামাকড়ের কাছে একদমই বিরক্তিকর। আর তাই নিজের জামা-কাপড়কে আরো একটু নিরাপদ রাখতে এখনই একটা ছোট্ট পুটুলিতে পেন্সিলের ছেটে ফেলা অংশগুলো ভরে কাপড়ের ভেতরে রেখে দিন।

ফোনের কার্যকরতা বাড়াতে: কর্ডলেস ফোন ব্যবহার করেন? তাহলে এই টিপসটি আপনারই জন্যে। মাঝে মাঝেই কি দূর্বল হয়ে পড়ে আপনার ফোনের কার্যকারিতা? তাহলে ফোনের ক্র্যাডালের ধাতব অংশটিকে পেন্সিলের ইরেজার (মুছার জন্য যে রাবার থাকে) দিয়ে ঘষে দিন। আর দেখুন কেমন ঠিকঠাক হয়ে যায় আপনার ফোন!

কানের দুলের পুশ হিসেবে: কানের দুলের পেছনের অংশটি (পুশ) হারিয়ে ফেলেছেন? তাহলে পেন্সিলের ইরেজারটাকে খুলে নিয়ে কেটে সেখানে ব্যবহার করতে পারেন। এতে করে আপনার ত্বকতো ভালো থাকবেই, কানের দুলটিও পড়ে নিতে পারবেন স্বচ্ছন্দ্যে!

টুথপেষ্ট ব্যবহার করতে: টুথপেষ্ট একেবারেই তলানিতে চলে গেলে পেন্সিলটিকে টুথপেষ্টের ওপরে রেখে সেটাকে গোল করে ভাঁজ করতে থাকুন। আর ব্যবহার করুন টুথপেষ্টের শেষ কণাটুকুনও!

পরিষ্কারক হিসবে: দেয়ালের ক্রেয়নের রঙ, মোবাইল ও কিবোর্ডের ধুলো বিনা কষ্টে সরিয়ে দিতে পেন্সিল ইরেজারের জুড়ি নেই।

জিপার ঠিক করতে: বাইরে বেরোবেন। এমন সময় হঠাত্ করেই হয়তো আটকে গেল প্যান্টের জিপার। কিংবা বেঁকে বসল ব্যাগের চেইন। ভাবছেন তো প্যান্টটা বদলে নেওয়া বা ব্যাগ সারানোর কথা? সেটা না করে পেন্সিলের ইরেজার ঘষে নিন চেইনে। দেখুন কি তাড়াতাড়ি খুলে যাবে আপনার জিপার।

পেন্সিলের গ্রাফাইট বের করে সেটা গুঁড়ো করে চারকোল হিসেবে ব্যাবহার করতে পারেন।

 
সংবাদটি পড়া হয়েছে 1024 বার
 
 
 
 
বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ ও তারেক রহমান
 
 
 
 

সব মেনু এক সাথে

 
 

পূর্বের সংবাদ

 
 

অনন্য অনলাইন পত্রিকা

 
 
 

 
Plugin by:aAM
Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com