বিউটিকে বাবা হত্যা করেছেন, জানতেন না মা

এপ্রিল ৯, ২০১৮ ৩:৫২ পূর্বাহ্ণ

বিউটি আক্তারের মা হুসনা বেগম আগে জানতেন না তাঁর স্বামী সায়েদ আলী মেয়ের হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। আদালতে স্বীকারোক্তির পর তিনি এ খবর জানতে পেরেছেন। রোববার কারাগারে স্বামীর সঙ্গে দেখা শেষে হুসনা বেগম এ কথা বলেন।

কারাগারের দর্শনার্থী সেলে হুসনা বেগম ও সায়েদ আলী সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত কথা বলেন। এ সময় তাঁদের ছোট দুই সন্তানও সঙ্গে ছিল বলে জানিয়েছেন জেলার শওকত হোসেন মিয়া।

কারাগার থেকে বেরিয়ে হুসনা বেগম বলেন, ‘তাঁর স্বামী বারবার বোঝাতে চেয়েছেন তিনি বিউটিকে হত্যা করেননি। ময়না মিয়া তাঁর মাথা এলোমেলো করে দিয়েছে। বিউটির ধর্ষণের বিষয়টি তাঁর মাথা আরও আউলা করে দিয়েছে।’

রোববার দুপুরে ব্রাহ্মণডোরা গ্রামে গিয়ে দেখা যায় সুনসান নীরবতা। গ্রামের লোকজনের সঙ্গে বিউটির হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে কথা বলতে চাইলে কেউই কথা বলতে চাননি। নিহত বিউটি আক্তারের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, বিউটির দাদা সঞ্জব আলী (৮০) ছাড়া আর কেউ ঘরে নেই। সঞ্জব আলী বলেন, শনিবার রাত থেকে হুসনা বেগম তিন সন্তানসহ বাড়িতে নেই। তাঁরা কোথায় আছেন তা তিনি জানেন না। বিউটি হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে সঞ্জব আলী বলেন, তিনি কোনোভাবেই বিশ্বাস করতে পারছেন না তাঁর ছেলে নিজের মেয়েকে হত্যা করেছেন। তিনি বলেন, এর পেছনে অন্য কেউ জড়িত, তাঁর ছেলে নয়।

এর কিছুক্ষণ পরে হবিগঞ্জ শহর থেকে বাড়িতে ফেরেন বিউটির ভাই সাদেক আলী (১৭)। সে জানায়, এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে তার বাবা বা যে–ই জড়িত থাকুক, সে ও তার পরিবার এর সঠিক বিচার দেখতে চান।

 
সংবাদটি পড়া হয়েছে 1119 বার
 
 
 
 
বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ ও তারেক রহমান
 
 
 
 

সব মেনু এক সাথে

 
 

পূর্বের সংবাদ

 
 

অনন্য অনলাইন পত্রিকা

 
 
 

 
Plugin by:aAM
Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com