ফ্রেঞ্চ ফ্রাইয়ে ক্ষতি

নভেম্বর ২৪, ২০১৭ ৬:৫৩ পূর্বাহ্ণ

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা ফাস্ট ফুড খুব পছন্দ করেন। আবার অনেকে ব্যস্ত থাকার কারণে ক্ষুধা থেকে দ্রুত মুক্তি পেতে বেছে নেন ফাস্ট ফুড। বিশেষ করে ফ্রেঞ্চ ফ্রাই এবং চিপস। এতে নিজের অজান্তেই আমরা আমাদের শরীরের অনেক ক্ষতি করে ফেলছি। তাই আলুভাজা হোক আর ফ্রেঞ্চ ফ্রাই হোক এসব খাবার থেকে যতটা সম্ভব দূরে থাকায় ভালো। তাহলে জেনে নেওয়া যাক ফ্রেঞ্চ ফ্রাই খেলে আমাদের কী ধরনের ক্ষতি হতে পারে।

শরীরে ট্রান্স ফ্যাটের মাত্রা বাড়ে

ভাজা জাতীয় খাবার বেশি মাত্রায় খেলে শরীরে এই বিশেষ ধরনের ফ্যাটের মাত্রা বাড়তে থাকে। আর ট্রান্স ফ্যাটকে ভেঙে যেহেতু এনার্জিতে রূপান্তরিত করা যায় না, তাই তা শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জমতে শুরু করে। এক সময় গিয়ে রক্ত বাহিকায় ফ্যাটের পরিমাণ এতো মাত্রায় বেড়ে যায় যে, শরীরের একাধিক অঙ্গের ক্ষতি হতে শুরু করে। সেই সঙ্গে হার্ট অ্যাটাক, ক্যান্সার, ডায়াবেটিস এবং ওজন বৃদ্ধির মতো সমস্যাও দেখা দেয়।

শরীরের সচলতা কমে যায়

ফ্রেঞ্চ ফ্রাই এবং আলু জাতীয় খাবার খেলে অল্প বয়সেই আমাদের শরীরের ডায়াবেটিস এবং হৃদরোগ হতে পারে। এছাড়া ওজনও বেড়ে যেতে পারে। এতে অল্প বয়সে আমাদের শরীরের সচলতা এমনিতেই কমে যায়। তাই শুধু ফ্রেঞ্চ ফ্রাই নয়, প্রায় সব ধরনের ভাজা জাতীয় খাবারকেই ভুলে যেতে হবে।

শরীরে টক্সিক উপাদানের মাত্রা বাড়ায়

গবেষণায় দেখা গেছে, ভাজা জাতীয় খাবার খেলে শরীরে অ্যাক্রিলেমাইড নামক এক ধরনের টক্সিক উপাদানের মাত্রা বাড়তে শুরু করে, যা ক্য়ান্সার রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বাড়ায়। তাই জীবনকে সুন্দর এবং স্বাস্থ্যকর রাখতে চাইলে ভাজা জাতীয় খাবার থেকে দূরে থাকুন।

খেতে পারেন তবে তেল হতে হবে পরিষ্কার

খেয়াল করে দেখবেন রাস্তার দোকানে আলুর চপ বা বেগুনি ভাজার সময় বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই পোড়া তেল ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এমন ধরনের তেলে কার্বোনের পরিমাণ বেশি থাকে, যা শরীরে প্রবেশ করার পর মারাত্মক ধরনের ক্ষতি সাধন করে থাকে। তাই ভাজা খাবার খেতে ইচ্ছে করলে বাড়িতে আলুর চপ বা ফ্রেঞ্চ ফ্রাই বানিয়ে থেকে পারেন।

তথ্য: বোল্ডস্কাই

 
সংবাদটি পড়া হয়েছে 1047 বার
 
 
 
 
বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ ও তারেক রহমান
 
 
 
 

সব মেনু এক সাথে

 
 

পূর্বের সংবাদ

 
 

অনন্য অনলাইন পত্রিকা

 
 
 

 
Plugin by:aAM
Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com