ধর্ষণের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তারিক রামাদান

ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৮ ১:২৯ অপরাহ্ণ

অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ও বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ তারিক রামাদান তার বিরুদ্ধে আনা ধর্ষণের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। বুধবার ফরাসি পুলিশ তারিক রামাদানকে আটক করে।

২০১৭ সালের অক্টোবরে হিন্দা আয়ারি এবং অজ্ঞাতনামা আরেক নারী রামাদানের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে দুটি মামলা দায়ের করেন। ২০০৯ ও ২০১২ সালে ধর্ষণের শিকার হন বলে দাবি করেন তারা।

তারিক রামাদান ফরাসি নাগরিক। তিনি ব্রিটিশ সরকারের উপদেষ্টা ও অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক।
ফরাসি ম্যাজিস্ট্রেটের মুখোমুখি হওয়ার পর তারিককে প্রতিবেদনে সই করতে বলা হয়। কিন্তু তিনি সই করতে অস্বীকৃতি জানান বলে জানা গেছে।

এদিকে, ফরাসি পুলিশ জানায়, তিনি মাস ধরে রামাদানের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো তদন্ত করা হয়। হিন্দা আয়ারির বিরুদ্ধেও পাল্টা মানহানির মামলা করেছেন রামাদান। তিনি রামাদানের দাবী, দীর্ঘদিনের শত্রুতার জেরে আয়ারি তার বিরুদ্ধে অপ্রপ্রচারে নেমেছেন। রামাদানকে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হবে কিনা, সেই সিদ্ধান্ত এখনও নেয়া হয়নি।

হিন্দা আয়ারি রামাদানের বিরুদ্ধে প্রথম অভিযোগটি তোলেন। আয়ারি এক সময় ইসলামের কট্টর অনুসারী ছিলেন। পরে তিনি ধর্মনিরপেক্ষ ও নারীবাদী আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েন। ২০১৫ সালে ফ্রান্সে শার্লি হেবদো হামলার পর নিজেকে একজন উদারপন্থী বলে ঘোষণা দেন আয়ারি।

মিসরের প্রভাবশালী ধর্মীয় নেতা ও মুসলিম ব্রাদারহুডের প্রতিষ্ঠাতা হাসান আল-বান্নার নাতি তারিক রামাদান মুসলমানদের কট্টরপন্থার বিরুদ্ধে কথা বলে বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হন।

তথ্যসূত্র: দ্য টেলিগ্রাফ

 
সংবাদটি পড়া হয়েছে 1030 বার
 
 
 
 
বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ ও তারেক রহমান
 
 
 
 

সব মেনু এক সাথে

 
 

পূর্বের সংবাদ

 
 

অনন্য অনলাইন পত্রিকা

 
 
 

 
Plugin by:aAM
Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com