তারেক রহমানের বক্তব্যে দুষ্ট সাংবাদিকেরা আহত

নভেম্বর ১১, ২০১৭ ৫:১৪ অপরাহ্ণ

 

ডেইলিবিডিটাইমস রিপোর্ট : বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারপার্সন তারেক রহমানের বক্তৃতা বিকৃতভাবে প্রচার করছে প্রধানমন্ত্রীর অফিস। শেখ হাসিনার ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারী আশরাফুল আলম খোকনকে বক্তব্য প্রচারের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। দায়িত্ব পেয়েই অনলাইন থেকে জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস ২০১৭ উপলক্ষ্যে লন্ডনে তারেক রহমানের পুরো বক্তব্য ডাউনলোড করে আশরাফুল আলম খোকন। এরপর ব্যাংক ডাকাত সরকারের প্রধানমন্ত্রীর অফিসে আসে সৈয়দ বোরহান কবির। তারা দু’জন প্রথমে তারেক রহমানের বক্তব্য শোনে। প্রায় একঘন্টা ১০ মিনিটের বক্তব্যের শেষের দিকে তারেক রহমান সাংবাদিক নামধারী কতিপয় দুর্বৃত্ত সম্পর্কে কিছু মন্তব্য করেন।

তারেক রহমান বলেন, চালের মধ্যে যেমন খারাপ চাল আছে, মানুষের মধ্যেও ভালোমন্দ রয়েছে। সব সাংবাদিক খারাপ নয়, আবার সব সাংবাদিক ভালো নয়, রাজনীতিবিদদের মধ্যেও ভালো খারাপ আছে একইভাবে সব শ্রেণী পেশার মানুষের মধ্যেও ভালোমন্দ রয়েছে। তারেক রহমান বলেন, দেশের কতিপয় গণমাধ্যমের সাংবাদিক এবং মালিক অবৈধ সরকারের কাছ থেকে অবৈধ সুযোগ সুবিধা নিচ্ছে এবং আরও অবৈধ সুবিধা নেয়ার জন্য তারা প্রতিনিয়ত শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া এবংবিএনপি সম্পর্কে প্রতিনিয়ত মিথ্যাচার ও অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে। তিনি তাদেরকে মিথ্যা ও অপপ্রচার থেকে বিরত থাকার আহবান জানান। তারেক রহমান বলেন, জনগণ এইসব মিথ্যাচার ও অপ্রচারকারী সাংবাদিক নামধারীদের আত্মসম্মানবোধহীন এবং নিম্নশ্রেনীর মানুষ বলে মনে করে। তারেক রহমান অপপ্রচারকারী সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন “নিজেদের এতো নীচে নামাবেন না’।

সাংবাদিক নামধারীদের উদ্দেশ্যে দেয়া তারেক রহমানের এই বক্তব্য প্রধানমন্ত্রীর অফিসে বসেই খোকন-বোরহান নিজেদের ইচ্ছেমতো এমনভাবে এডিট করে যাতে সাংবাদিকরা ক্ষুদ্ধ হয়। এরপর তারেক রহমানের বক্তব্যের খণ্ডিত লাইনটি শেখ হাসিনার ডেপুটি প্রেস আশরাফুল আলম খোকন ফেসবুকে তার নিজের টাইমলাইনে আপ করে দেয়। বক্তব্যটি যাতে অনেকের কাছে পৌঁছে এ জন্য টাকা খরচ করে প্রমোশন দেয়া হয়। সাংবাদিক নামধারী দুর্বৃত্ত সম্পর্কে তারেক রহমানে বক্তব্যের অংশ এমনভাবে এডিট করা হয় যাতে মনে হয় তারেক রহমান সকল সাংবাদিক সম্পর্কে মন্তব্য করেছেন। তবে তারেক রহমানের মূল বক্তব্যটি শুনলে দেখা যায়, তারেক রহমানের বক্তব্যটি সকল সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে নয় বরং সুনির্দিষ্টভাবে বোরহান কবিরের মত ব্যক্তিদের জন্য যারা সাংবাদিকতা পেশাকে ব্যবহার করছে অবৈধ সুযোগ সুবিধা ভোগ করার জন্য। সূত্রমতে, তারেক রহমানের বক্তব্যের খণ্ডিত অংশ আশরাফুল আলম খোকন ফেসবুকে নিজের টাইমলাইনে আপ করে দিয়ে শেখ হাসিনাকে ফোন করে জানিয়ে দিয়ে বলে, “আপা, বক্তব্যের ওই অংশ আপ করে দিয়েছি, ভালো শেয়ার হচ্ছে’।

তবে তারেক রহমানের মূল বক্তব্য এবং ব্যাংক ডাকাত সরকারের প্রধানমন্ত্রীর অফিস থেকে প্রচারিত তারেক রহমানের বক্তব্যের খণ্ডিত অংশ পাশাপাশি শুনলেই প্রমাণিত হয় ‘খোকন-বোরহান’ জাতীয় প্রাণীগুলো আসলেই “আত্মমর্যাদাহীন ও নিম্নশ্রেণীর”।

 
সংবাদটি পড়া হয়েছে 1253 বার
 
 
 
 
বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ ও তারেক রহমান
 
 
 
 

সব মেনু এক সাথে

 
 

পূর্বের সংবাদ

 
 

অনন্য অনলাইন পত্রিকা

 
 
 

 
Plugin by:aAM
Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com