আশুলিয়ায় পোশাক কারখানায় ভাঙচুর, পুলিশসহ আহত ৩০

মার্চ ১৬, ২০১৮ ৪:২০ পূর্বাহ্ণ

সাভারের আশুলিয়ায় একটি পোশাক কারখানার শ্রমিকদের সাথে পুলিশের দফায় দফায় সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসময় পুলিশসহ অন্তত ৩০ জন শ্রমিক আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১ টার দিকে আশুলিয়ার গৌরিপুর এলাকায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

শ্রমিকরা জানান, দুই মাস ধরে কারখানা কর্তৃপক্ষ তাদের পাওনা বেতন-ভাতা পরিশোধ করছে না। বৃহস্পতিবার সকালে সকল শ্রমিক ঐক্যবদ্ধ হয়ে বকেয়ার দাবিতে সকালে কাজে যোগ না দিয়ে কারখানার সামনের অবস্থান নিলে পুলিশ এসে বাধা দেয়।

পোশাক কারখানাটিতে কাজ করে প্রায় দুই হাজার শ্রমিক। নির্ধারিত তারিখে শ্রমিকদের ফেব্রুয়ারি মাসের বেতন দেওয়ার কথা ছিলো মালিকপক্ষের। বেতন না দেওয়ায় সকাল থেকে শ্রমিকরা কারখানায় উৎপাদন বন্ধ রেখে কর্মবিরতি পালন করেন। রাতে কারখানায় কারখানার জিএম ও পিএমকে অবরুদ্ধ করে রেখে কারখানায় ভাঙচুর চালায় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা। পরে খবর পেয়ে আশুলিয়া শিল্প পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শ্রমিকদের লাঠিচার্জ করে। এতে শ্রমিকদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। শ্রমিকরা কারখানার কয়েকটি গাড়িও ভাঙচুর করে।

গার্মেন্টস পোশাক শ্রমিক নুর নাহার বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, আমাদের ২ মাসের বকেয়া বেতন রয়েছে, দোকানে বাকি, ছেলের স্কুলে বেতন ও বাড়ি ভাড়া বাকি। বেতন না দিলে খাবো কী। তাই আন্দোলন করছি।

কারখানার সহকারি ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মনির হোসেন বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, আর্থিক সংকটের কারণে বেতন ভাতা পরিশোধ করা যাচ্ছে না।

এ বিষয়ে আশুলিয়ার শিল্প পুলিশের পরিচালক সানা শামীনুর রহমান বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, শ্রমিকরা কারখানার ভিতরে ভাংচুর চালায়। গামেন্টসে যখন আগুন দেওয়ার চেষ্টা করা হয় তখন পুলিশ লাঠিচার্জ করে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। যেকোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে কারখানাটির সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

 
সংবাদটি পড়া হয়েছে 1137 বার
 
 
 
 
বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ ও তারেক রহমান
 
 
 
 

সব মেনু এক সাথে

 
 

পূর্বের সংবাদ

 
 

অনন্য অনলাইন পত্রিকা

 
 
 

 
Plugin by:aAM
Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com