আজ শহীদ জিসানের শাহাদতবার্ষিকী

জানুয়ারি ২৩, ২০১৮ ৯:৪০ অপরাহ্ণ

:: একজন কিংবদন্তী শহীদ সোলাইমান উদ্দিন জিসান ।
লক্ষিপুর.নোয়াখালী.ফেনী.কুমিল্লা কিছু অংশ সহ বৃহত্তম নোয়াখালীর আওয়ামী আতংকের একটি নাম ছিল ছাত্রনেতা শহীদ সোলাইমান উদ্দিন জিসান ।
এই অঞ্চলের আওয়ামী সন্ত্রাসীদের সাথে বেশির ভাগ যুদ্ধে ক্যাপ্টেনের ভূমিকা ছিল এই ক্ষন জন্মা বিপ্লবী ।
২০০৯ সাল থেকে আওয়ামী খুনি সরকার ক্ষমতা আসার পর থেকে জিসান ভাইকে হত্যা ও ধরে দেওয়ার জন্য কয়েক লক্ষ টাকা পুরস্কারও ঘোষণা দেয় আওয়ামী সরকার । এক সময় পরিবার ও সহযোদ্ধাদের চাপে দেশ ছেড়ে প্রবাসে চলে যান জীবণ বাঁচাতে ।
কিন্তু দল পাগল শহীদ জিয়ার আদর্শের এই সৈনিককে ধৈর্য শক্তি বা মাথা নত করা যেই শিখেনি…।
কিছুদিন পরে দেশে ফিরে আসেন জিসান ভাই এবং দেশনেত্রী বেগম জিয়ার নিদের্শে ২০১৩ সাল থেকে শুরু হওয়া প্রহশনের নির্বাচন প্রতিরোধ আন্দোলনে নেমে পড়েন রাজপথে সর্বশক্তি নিয়ে। জিসান আতংক একালা ছাড়া হয়ে যায় আওয়ামীলীগ ।
এইদিকে আওয়ামী মন্ত্রী মায়ার মেয়ে জামায় খুনি র্যাব তারেক সাঈদ জিসান হত্যা পরিকল্পনা নিয়ে তার বাহিনী নিয়ে খুজতে থাকে ।
২০১৫ সালের আজকের এই দিনে সরকার বিরোধী আন্দোলন চলাকালীন সময় কুমিল্লার দাউদকান্দি ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পুটিয়া নামক স্থানে খুনি RAB তারেক সাঈদের নেতৃত্ব একটি টিম আটক করে লক্ষীপুরের রাজপথের বিপ্লবী কিংবদন্তী লড়াকু জিয়ার সৈনিক লক্ষীপুর জেলা ছাত্রদলের পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক সোলাইমান উদ্দিন জিসানকে । এবং একটু পরে ক্রসফায়ারে হত্যা করা হয় ক্ষনজন্ম রাজপথের বিপ্লবী কিংবদন্তী লড়াকু জিয়ার সৈনিক জিসান ভাইকে ।
বৃহত্তম নোয়াখালীর জাতীয়তাবাদী পরিবারের অন্যতম নক্ষত্র কালো মেঘে হারিয়ে যায় সেই দিন ।
আজ শহীদ জিসানের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকীতে মহান আল্লাহ্ এর নিকট তাঁর জন্য মাগফেরাত কামনা করছি আমিন।

সূত্র : অনলাইন

 
সংবাদটি পড়া হয়েছে 1096 বার
 
 
 
 
বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ ও তারেক রহমান
 
 
 
 

সব মেনু এক সাথে

 
 

পূর্বের সংবাদ

 
 

অনন্য অনলাইন পত্রিকা

 
 
 

 
Plugin by:aAM
Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com